Thursday, June 13, 2024
spot_img
Homeজীবনের খুঁটিনাটিরূপ—বাড়িসানস্ক্রিন ব্যবহারে ত্বক হচ্ছে মলিন, অনুজ্জ্বল? সমাধানের উপায় জানুন

সানস্ক্রিন ব্যবহারে ত্বক হচ্ছে মলিন, অনুজ্জ্বল? সমাধানের উপায় জানুন

সাতকাহন২৪.কম ডেস্ক

ত্বকের যত্নের রুটিনে সানস্ক্রিন একদিনও বাদ দেওয়া যাবে না- এমনটাই পরামর্শ দেয় চর্মরোগ বিশেষজ্ঞরা। সানস্ক্রিন আমাদের ত্বককে সূর্যের রশ্মি এবং রান্নার সময় আগুনের তাপের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে সুরক্ষা দিতে সাহায্য করে।

এ তো জানা গেলো সানস্ক্রিনের গুণের কথা। কিন্তু এটি ব্যবহারের পর অনেকেই অভিযোগ করে- ত্বক মলিন ও অনুজ্জ্বল হয়ে পড়ছে; তেলতেলে ভাব দেখা দিচ্ছে। এই সমস্যার কারণে অনেকে সানস্ক্রিন ব্যবহারে দ্বিধায় পড়ে যায়। আবার অনেকে ব্যবহার করাও বাদ দিয়ে দেয়।

এ ধরনের সমস্যা সমাধানে করণীয় বিষয়ে শিওরসেল মেডিকেল বিডি-এর প্রধান চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. তাওহীদা রহমান ইরিন বলেন, ‘ত্বকের লাবণ্য ধরে রাখতে ইলুমিনাটিং সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন। এটি সাধারণ সানস্ক্রিনের চেয়ে একটু আলাদা। কারণ, এখানে থাকে অ্যাকটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট। এগুলো ত্বককে শুষ্ক রাখে এবং উজ্জ্বল্যভাব আনে।’

এই ধরনের সানস্ক্রিন তৈরিতে যেসব উপাদান ব্যবহার করা হয়, তার মধ্যে প্রথম হলো রাইস এক্সট্র্যাক্ট। ফারমেন্টেড রাইস এক্সট্র্যাক্ট যুগযুগ ধরে এশিয়ানদের ত্বকের যত্নে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এতে থাকে প্রচুর পরিমাণ অ্যাসেনসিয়াল অ্যামাইনো এসিড, মিনারেল, ফিউরিক এসিড, অরগানিক এসিড, সিরামাইড ও পেপটাইড। ফিউরিক এসিড ত্বকের উজ্জ্বল্য বাড়ায়; ত্বককে টানটান করতে সাহায্য করে। অ্যাসেনসিয়াল অ্যামাইনো এসিড ও পেপটাইড বয়সের ছাপ কমাতে উপকারী। সিরামাইড ত্বককে আর্দ্র রাখে।

এ ছাড়া ইলুমিনাটিং সানস্ক্রিনে এলজি এক্সট্র্যাক্ট রয়েছে জানিয়ে ডা. তাওহীদা বলেন, ‘এটি কোলাজেন তৈরিতে সাহায্য করে। পাশাপাশি এতে থাকে ভিটামিন সি, ভিটামিন ই, ভিটামিন বি। ভিটামিন সি অরেঞ্জ পিল এক্সট্রাক্ট থেকে নেওয়া হয়। এটি ত্বকের অক্সিডেটিভ স্ট্রেসকে নিষ্ক্রিয় করে, ফ্রি রেডিকেলের সঙ্গে লড়াই করে এবং ত্বকের পিগমেন্টকে হালকা রাখে। সর্বোপরি অ্যান্টি অক্সিডেন্টের কাজ করে। ভিটামিন ই- ময়েশ্চারাইজার ও সেল রিপেয়ার অ্যাজেন্ট হিসেবে উপকারী। ভিটামিন বি-তে থাকা প্যানথেলন কাজ করে প্রাইমার হিসেবে। তাই এ ধরনের সানস্ক্রিন ব্যবহার করলে আপনার প্রাইমারের প্রয়োজন পড়বে না।’

ইলুমিনাটিংতে এসবের পাশাপাশি অন্যান্য সানস্ক্রিনের মতোই জিংক, নায়াসিনামাইড থাকে। জিংক ত্বকের বাইরের অংশ পুণর্গঠনে সাহায্য করে। নায়াসিনামাইড উজ্জ্বলতা বাড়ায়; পোর সংকুচিত রাখে। আবার যারা মেকআপ করতে একবারেই পছন্দ করে না, তারা কিন্তু এই সানস্ক্রিন ব্যবহারে উপকার পাবে- জানান ডা. তাওহীদা।

বর্তমানে বাজারে এ ধরনের সানস্ক্রিন তৈরির অন্যতম প্রতিষ্ঠান রিজুভা। তারা নিয়ে এসেছে রিজুভা ইলুমিনাটিং প্রাইমার এসপিএফ ৫০। এ ধরনের সানস্ক্রিন ব্যবহারে যেমন হালকা মেকআপের কাজ হবে, তেমনি ত্বক উজ্জ্বল, কোমল ও মশ্রিণ থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments