Sunday, May 28, 2023
Homeস্বাস্থ্যকাহননারী স্বাস্থ্যপিরিয়ডের আগে মুডসুইং কমাতে ৫ পরামর্শ

পিরিয়ডের আগে মুডসুইং কমাতে ৫ পরামর্শ

সাতকাহন২৪.কম ডেস্ক

পিরিয়ডের আগে মুডসুইং বা মেজাজের উঠা-নামা খুব স্বাভাবিক বিষয়। পিরিয়ডের আগে নারীর শরীরে অভুলেশন (ডিম্বোস্ফোটন) হয়। এই সময় দেহে ইসট্রোজেন ও প্রোজেসটেরন হরমোনের মাত্রা কমে যায়। এতে মুডসুইংবা মেজাজের এই তারতম্য ঘটে। একে প্রিমিন্সট্রুয়াল সিনড্রম বা পিএমএস-ও বলা হয়।

অবসন্নতা, উদ্বেগ, কান্নার প্রবণতা, ঘুমের অসুবিধা, যৌন চাহিদার পরিবর্তন, মনোযোগের অভাব, বিরক্তি, বিষণ্ণতা, হতাশা, মেজাজ খিটখিটে হওয়া- এ সময়ের স্বাভাবিক কিছু সমস্যা। পিরিয়ড শুরু হওয়ার প্রায় এক থেকে দুই সপ্তাহ আগে থেকে এসব সমস্যা হয়। জীবন যাপনের পরিবর্তনের মাধ্যমে এগুলো কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব। পিরিয়ডের আগে মুডসুইংয়ের সমস্যা কমাতে পরামর্শ জানিয়েছে স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট এভরি ডে হেলথ।

ব্যায়াম
ব্যায়াম মন-মেজাজ ভালো রাখে এবং বিষণ্ণতায় কমায়। গবেষণায় দেখা গেছে, ব্যায়াম করলে মস্তিষ্ক থেকে এনডোরফিন ক্যামিক্যাল বের হয়। একে ফিল গুড ক্যামিক্যাল বলা হয়। এটি মন ভালো রাখতে সাহায্য করে। এই সময় অ্যারোবিক ব্যায়াম, যেমন- হাঁটা, দৌড়ানো, সাইকেল চালানো, সাঁতার কাটা ইত্যাদি করতে পারেন।

অল্প অল্প করে কয়েকবার খান
সারাদিন দুই থেকে তিনবার ভারী খাবার খাওয়ার চেয়ে অল্প অল্প করে দিনে পাঁচ থেকে ছয় বার খান। গবেষণা বলছে, ভারী খাবার বেশি খেলে পিএমএস-এর লক্ষণগুলো বাড়ে। এগুলোতে সাধারণত কার্বোহাইড্রেট বেশি থাকে। এতে রক্তের সুগারের পরিমাণ বেড়ে যায়। এটি পিএমএস-এর সমস্যা বাড়িয়ে দেয়।

ক্যালসিয়াম সাপ্লিমেন্ট
২০০৯ সালে করা একটি গবেষণায় দেখা গেছে, পিএমএস-এ আক্রান্ত নারীর ক্ষেত্রে প্রতিদিন অন্তত ৫০০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম সাপ্লিমেন্ট দিনে দুই বার খেলে মুডসুইং, ডিপ্রেশন ও অবসাদ কমতে সাহায্য হয়। শরীরের অবস্থা বুঝে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে এই সাপ্লিমেন্টও গ্রহণ করতে পারেন। পাশাপাশি খাদ্যতালিকায় রাখুন দুধ, ডিম, পনির ইত্যাদি।

ক্যাফেইন, মদ্যপান এড়িয়ে চলুন
ক্যাফেইন উদ্বেগ, নার্ভাসনেস ও ঘুমের অসুবিধা তৈরি করে। তাই অন্তত পিরিয়ড শুরু হওয়ার দুই সপ্তাহ আগে থেকে চা, কফি বা ক্যাফেইন জাতীয় খাবার বাদ দিন। মদ্যপানও এসব সমস্যা বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই এ ধরনের অভ্যাস থাকলে এড়িয়ে যাওয়াই ভালো।

মানসিক চাপ ব্যবস্থাপনা
গভীর শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যায়াম, শিথিল থাকার কৌশল, ধ্যান, যোগব্যায়াম ইত্যাদি এই মুডসুইংয়ের সমস্যা কমাতে উপকারী। পিএমএস-এর লক্ষণ কমাতে নিয়মিত এসবের চর্চাও করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments