Thursday, June 13, 2024
spot_img
Homeঅন্যান্যডা. হালিদা হানুমকে ব্রেস্ট ক্যানসার অ্যাওয়ারনেস ফোরামের সম্মাননা

ডা. হালিদা হানুমকে ব্রেস্ট ক্যানসার অ্যাওয়ারনেস ফোরামের সম্মাননা

শাশ্বতী মাথিন

সম্প্রতি নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় বিশেষ অবদানের জন্য ‘রোকেয়া পদক’ এবং বাংলা একাডেমির ‘সাম্মানিক ফেলোশিপ’ পেয়েছেন স্বাস্থ্য ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ, জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ডা. হালিদা হানুম আখতার। এ উপলক্ষে ব্রেস্ট ক্যানসার অ্যাওয়ারনেস ফোরাম তাঁকে একটি সম্মাননা দেয়। ২৯ ডিসেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর কমিউনিটি অনকোলজি সেন্টারে এই সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের সম্মানিত অতিথি ডা. হালিদা হানুম আখতার বলেন, আমার কাজের মাধ্যমে মানুষ তৈরি করতে চেয়েছি। বাইরের দেশে প্রচুর কাজ করার সুযোগ থাকলেও সব সময় চেষ্টা করেছি নিজের দেশের জন্য কিছু করার। আমাদের দেশে কাজ করতে গেলে তদবির করতে হয়। আমার তদবিরের অভ্যাস নেই– এতটুকু গর্ব করে বলতে পারি। আজকে পর্যন্ত যা আমার আঁচলে এসেছে, সব অন্য মানুষ আমাকে দেখে প্রপোজ করেছে।

বাংলাদেশ ব্রেস্ট ক্যানসার অ্যাওয়ারনেস ফোরামের প্রধান সমন্বয়ক ডা. হাবিবুল্লাহ্ তালুকদার রাসকিন বলেন, ‘হালিদা আপার সঙ্গে আমরা অনেক দিন ধরে যুক্ত রয়েছি। আমাদের দেশে সবাই বলে অভাব রয়েছে। আমি মূলত অভাব দেখি ধন-সম্পদে নয়, মনে। কারও একটি ভালো দিক, ভালো গুণ, ভালো কাজ মন খুলে বলতে আমাদের খুব কষ্ট। এই জায়গায় খুব সমস্যা। মন খুলে অন্যের প্রশংসা করতে খুব অনীহা সকলের। তবে হালিদা আপার মধ্যে এই গুণটি রয়েছে। তিনি মানুষকে সম্মান দিতে জানেন।’

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন কমিউনিটি অনকোলজি সেন্টার ট্রাস্টের চেয়ারপারসন মোছাররত সৌরভ। অনুষ্ঠানে বক্তারা হালিদা খানম প্রসঙ্গে বলেন, ‘হালিদা খানম মুক্তিযুদ্ধের সময় থেকে আজ অবধি বাংলাদেশে নারী স্বাস্থ্যে জন্য বেশ জোরালোভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁর গবেষণা গ্রন্থগুলো অত্যন্ত সমৃদ্ধ।’ তিনি এভাবেই কাজ করে যাবেন– এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন বক্তারা।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটি অনকোলজি সেন্টার ট্রাস্টের চেয়ারপারসন মোছাররত সৌরভ, ব্রেস্ট ক্যানসার অ্যাওয়ারনেস ফোরামের প্রধান সমন্বয়কারী অধ্যাপক ডা. হাবিবুল্লাহ তালুকদার রাসকিন, কমিউনিটি অনকোলজি সেন্টার ট্রাস্টের সেক্রেটারি ইকবাল মাহমুদ, ব্রেস্ট ক্যানসার অ্যাওয়ারনেস ফোরামের অন্যতম সমন্বয়কারী ও কমিউনিটি অনকোলজি ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশের সেক্রেটারি মাহবুব শওকত, নারী উদ্যোগ কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা মাশহুদা আকতার শেফালী, প্রশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক ও কবি রোকেয়া ইসলাম, শেরপুর ডায়াবেটিক সমতিসহ একাধিক সংগঠনের সম্মানিত সভাপতি রাজিয়া সামাদ ডালিয়া।

 ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

আরও উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. আবু জামিল ফয়সাল, হারমনি ট্রাস্টের সম্মানিত সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবদুস সবুর, কালেক্টরেট কলেজ, রংপুরের অধ্যক্ষ মঞ্জুয়ারা ও সাবেক সচিব আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

অধ্যাপক ডা. হালিদা হানুম আখতার তাঁর বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনে দেশে ও আন্তর্জাতিক অনেক পুরস্কার ও পদক পান। তিনি মুক্তিযুদ্ধ-পরবর্তী সময়ে যুদ্ধে ধর্ষণের শিকার সন্তানসম্ভবা মেয়েদের চিকিৎসার জন্য বাংলাদেশ সরকারের উদ্যোগ ‘সেবা সদন’-এর দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর জন্মনিয়ন্ত্রণ, ব্রেস্ট ফিডিং, মাতৃমৃত্যু ও অসুস্থতা, গর্ভপাত এবং কিশোরী প্রজনন স্বাস্থ্য ও পুষ্টির ওপর গবেষণা কার্যক্রম দেশে-বিদেশে ব্যাপক প্রশংসিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments