Tuesday, May 21, 2024
spot_img
Homeজীবনের খুঁটিনাটিগরমে উৎসব, হালকা সাজেই আরাম

গরমে উৎসব, হালকা সাজেই আরাম

সাতকাহন২৪.কম ডেস্ক

রমজানের ঈদ ও পহেলা বৈশাখ এবার কাছাকাছি সময়ে। আর এই দুটো উৎসবই এবার পড়ছে গরমের ভেতর। উৎসবে নতুন সাজ-পোশাক হবে এটাই তো স্বাভাবিক। তবে যেহেতু গরম-বৃষ্টির একটি বিষয় রয়েছে আবহাওয়াতে, তাই হালকা সাজেই আরাম মিলবে।

‘হালকা সাজে যেমন আপনাকে স্নিগ্ধ দেখাবে, তেমনি নিজের ও অন্যের চোখকেও আরাম দেবে’, বলছিলেন বিন্দিয়া এক্সক্লুসিভ বিউটি কেয়ারের কর্ণধার রূপবিশেষজ্ঞ শারমিন কচি।

দিনের সাজ

গরমে-উৎসবে হালকা সাজের বিষয়ে রূপবিশেষজ্ঞ শারমিন কচি বলেন, ঈদ বা পহেলা বৈশাখের দিনেরবেলা হালকা সাজের ক্ষেত্রে প্রথমে মুখে ময়েশ্চারাইজার লাগান। এবার পর পর প্রাইমার ও ফেসপাউডার মাখুন। মেকআপ সামান্য ভারি করতে চাইলে কমপ্যাক্ট বুলিয়ে নিন।’

এবার চোখ সাজানোর পালা। কিছু রং থাকে, যা প্রায় সব পোশাকের সঙ্গে মানিয়ে যায়। আর এই রঙগুলো ব্যবহার করলে খুব বেশি শ্যাড দেওয়ার প্রয়োজনও পরে না। যেমন : সোনালি, ব্রোঞ্জ, বাদামি, গোলাপি ইত্যাদি। পোশাকের সঙ্গে মিলবে বা কাছাকাছি যাবে, এটা মাথায় রেখে শ্যাডগুলো ব্যবহার করে নিন। এরপর আইলাইনার ব্যবহার করুন। কেউ চাইলে কাজলও পরতে পারেন। তবে যা-ই ব্যবহার করুন না কেন, মাশকারা দিতে হবে ঘন করে। এতে চোখ ফুটে উঠবে।

গালে ব্লাশনের ক্ষেত্রে হালকা বাদামি বা গোলাপি রং বেছে নিন, পরামর্শ দিয়ে রূপবিশেষজ্ঞ শারমিন কচি বলেন, ‘চিক বোন অবশ্যই হাইলাইট করতে হবে। লিপস্টিকের ক্ষেত্রে গাঢ় ও বাদামি রং মিলিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। প্যাস্টেল পিচ বা ক্যান্ডেল লাইট পিচও ভালো মানাবে। এতে সিগ্ধ লাগবে।’

 মডেল : রূপ বিশেষজ্ঞ শারমিন কচি। ছবি : সংগৃহীত
মডেল : রূপ বিশেষজ্ঞ শারমিন কচি। ছবি : সংগৃহীত

রাতের সাজ

ঈদে বা পহেলা বৈশাখের রাতের সাজে হালকার ওপর একটু গর্জিয়াস লুক আনতে পারেন। তবে যেহেতু গরম প্রচুর তাই হালকাভাবে সাজলেই আরাম পাবেন। এ ক্ষেত্রে বেস মেকআপে ময়েশ্চারাইজার ও ফাউন্ডেশন ব্যবহারের পর বিবি বা সিসি ক্রিম লাগান। একে ভালোভাবে সেট করতে লুজ পাওডার ব্যবহার করুন। এরপর কন্টুর করুন। চোখে ব্যবহার করুন ব্রোঞ্জ বা সোনালি রং। ব্লাশনের ক্ষেত্রে টিন্ট রং ব্যবহার করলে ভালো লাগবে- জানান রূপবিশেষজ্ঞ শারমিন কচি।

চুলের সাজ

টপস, কুর্তি, ওয়াস পিস পরলে চুল সামনে টুইস্ট করে পেছনে পনিটেইল করা যেতে পারে, পরামর্শ দিয়ে শারমিন কচি বলেন, ‘আবার পেছনের অংশে টুইস্ট ও হালকা বেণি করে ছেড়ে রাখা যায়। শাড়ি পরলে হাতখোঁপা মানাবে। সঙ্গে দিতে পারেন ফুল। শাড়ি পরলে টিপ মাস্ট। না হলে সাজটা অপূর্ণ লাগে।’

আসলে উৎসবে সাজের ক্ষেত্রে কোথায় যাচ্ছি, পোশাকটা কী রকম পরছি, কোন কাজগুলো করছি, এগুলো বেশ গুরুত্বপূর্ণ। সে অনুযায়ী সাজ-পোশাক হলেই আরাম পাবেন এবং উৎসবও আনন্দে কাটানো যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments