Thursday, June 13, 2024
spot_img
Homeজীবনের খুঁটিনাটি'উজ্জ্বলাকে সেরা মনে হয়েছে'

‘উজ্জ্বলাকে সেরা মনে হয়েছে’

সাতকাহন২৪.কম ডেস্ক

মেয়ে লেখাপড়া করে না। কেবল সাজগোজ নিয়ে ব্যস্ত থাকে- ছোটবেলা থেকে এ ধরনের কথা শুনতে হতো তাকে। এরপরও মেকআপের প্রতি একটা অদম্য আগ্রহ ছিলো তাঁর। পরিবারের বাধার পরও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বউ সাজাতেন। সব বাধা পেরিয়ে বর্তমানে তিনি নিজেই একজন বিউটি আর্টিস্ট হয়েছেন। উজ্জ্বলা থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ঢাকায় ছোট একটি স্যালন দিয়েছেন। পাশাপাশি বিভিন্ন স্যালনে বিউটি আর্টিস্ট হিসেবে কাজও করছেন। নিজে স্বাবলম্বী হয়েছেন, হয়েছেন একজন উদ্যোক্তা। সংসার ও সন্তানের অনেকটা খরচই আজ তিনি চালান। যার কথা বলছি, তিনি তাসনিয়া তাবাস্সুম। তাঁর জীবন ও তাকে স্বাবলম্বী করতে উজ্জ্বলা কতটুকু ভূমিকা রেখেছে সেই গল্পই শুনবো আজ।

অনেক জায়গায় শিখতে গিয়েছি, উজ্জ্বলাকে সেরা মনে হয়েছে

ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে ফার্মাসি বিভাগে পড়ালেখা শেষ করি আমি। তবে মেকআপের প্রতি ছোটবেলা থেকেই একটি আগ্রহ ছিলো। মনে হতো ওটাই আমার সত্ত্বা।এরপর বিয়ে হলো, সন্তান হলো। মনে হচ্ছিলো ঘরে বসে না থেকে কিছু একটা করা দরকার। তখন বিভিন্ন জায়গায় মেকআপ কোর্স শেখা শুরু করি। কিন্তু তাদের কাছে শিখতে গিয়ে একদমই ভালো লাগছিলো না। পরিপূর্ণভাবে তারা যেন শেখাচ্ছিলো না। পুরো জিনিসটা বুঝতে দিতো না। আমি স্বাবলম্বী হয়ে যাবো এই জন্য। এই সময় ইন্টারনেটে উজ্জ্বলার অ্যাড দেখি। সেটি দেখে সেখানে যাই। উজ্জ্বলার পরিবেশ খুব ভালো লেগেছিলো। এরপর তো এখান থেকেই সব শেখা।

উজ্জ্বলায় শেখার সময় সন্তানকে নিয়ে যেতাম

আমার সন্তানটি ছোট ছিলো। তাকে রেখে কীভাবে যাবো, কার কাছে সে থাকবে- এসব বিষয়ে খুব চিন্তিত থাকতাম। এরপর উজ্জ্বলায় কথা বললাম। তারা জানালেন সন্তান নিয়ে আসা যাবে। এরপর বেশিরভাগ সময়ই বাচ্চা সঙ্গে নিয়ে যেতাম। উজ্জ্বলার সবাই খুব সহযোগিতা করতো। এটা একদমই ভোলার নয়। এই সুবিধাটা না পেলে আমি হয়তো শিখতেই পারতাম না।

উজ্জ্বলায় খুব ধরে ধরে শেখায়

উজ্জ্বলায় প্রশিক্ষকরা মেকআপের সব খুঁটিনাঁটি শেখায়। থিউরি ক্লাস তো থাকেই পাশাপাশি থাকে প্র্যাকটিক্যাল। এ ছাড়া ভালো মানের বিউটি প্রোডাক্টগুলো কোথা থেকে কিনতে পারি, এসবের সন্ধান উজ্জ্বলার কাছ থেকে পেয়েছি। প্রতিষ্ঠানটিতে কাস্টোমাইজড ও অ্যাডভান্ড কোর্স রয়েছে। বেসিক কোর্স শেখার পর অ্যাডভান্স কোর্সগুলো শেখা যায়। এ ছাড়া এককভাবেও কাস্টোমাইজড কোর্সের মাধ্যমে শেখা যায়। একজন শিক্ষার্থীকে সার্বিকভাবে উজ্জ্বলার টিম সহযোগিতা করতে চায়। উজ্জ্বলা চায় প্রত্যেক শিক্ষার্থী ভালোভাবে শিখুক। স্বাবলম্বী হোক, নিজের পায়ে দাড়াক। এখানে পরবর্তী সময়ে
চাকরিও করা যায়। এই সুবিধাও রয়েছে।

উজ্জ্বলা ছেড়ে আসার পরও তাদের মিস করি

উজ্জ্বলার সবাই খুব আন্তরিক। উজ্জ্বলার কোর্স শেষ করার পর শেষের দিন খুব মন খারাপ হয়েছিলো। এখনো তাদের ভীষণ মিস করি। আমার বড় করে একটি স্যালন দেওয়ার ইচ্ছা রয়েছে। উজ্জ্বলার মান যেন ধরে রাখতে পারি। নিজেকে যেন একজন ‘উজ্জ্বলা’ বলে প্রমাণ করতে পারি সবসময়।

বি : দ্র : বাংলাদেশের বিউটি অ্যান্ড গ্রুমিং ইন্ডাস্ট্রিতে উদ্যোক্তা তৈরিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে উজ্জ্বলা লিমিটেড। উজ্জ্বলায় প্রশিক্ষণ নিয়েছেন এবং সংগ্রাম করে সাফল্য অর্জন করেছেন, এমন কয়েকজন নারী ও পুরুষের সাক্ষাৎকার নিয়ে সাতকাহনের ধারাবাহিক পর্ব চলছে। এই পর্বটি ছিলো ৩৫তম। উজ্জ্বলা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন :

https://www.facebook.com/UjjwalaBD

https://www.instagram.com/UjjwalaBD/

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments